Business

সল্প মূলধন দিয়েই ১০টি লাভজনক নতুন ব্যবসার আইডিয়া

সল্প মূলধন দিয়েই ১০টি লাভজনক নতুন ব্যবসার আইডিয়া

সল্প মূলধন দিয়েই  ১০টি লাভজনক নতুন ব্যবসার আইডিয়া
সল্প মূলধন দিয়েই ১০টি লাভজনক নতুন ব্যবসার আইডিয়া

 

 

অল্পপুঁজি দিয়েই  করাযাবে এই রকমের  ব্যবসা এর  আইডিয়া অনেক এই  খুঁজেথাকে। প্রথম দিক    অল্পপুঁজি দিয়েই  ব্যবসাকরাটাই  কিন্তু আসলে অধিক বুদ্ধিমানদের   কাজ হবে যদি  বা ব্যবসা করতেহলে , অবশ্যই ঝুঁকি নেওয়া লাগবে কিন্তু , কমপুঁজি এর  ব্যবসাতে  ঝুঁকিকম থাকে বলেই কিন্তু , সকলেই   কমপুঁজি দিয়েই  ব্যবসাশুরু করতেচায়।

অল্পপুঁজি দিয়ে  ব্যবসা  বলতে কিন্তু মূলত  কোটি টাকা এর থেকে কম টাকা দিয়ে    ব্যবসা   করাকেই বুজিয়ে  থাকে পুঁজি  এর  পরিমাণ যদি  অল্পহয়ে থাকে তা   হলে  কিন্তু  লাভ এর  পরিমাণটা  কিন্তুঅনেকটাই  বেশি হবে   অল্প পুঁজি এর  এমনকয়েকটা  ব্যবসারয়েছে  যারমাধ্যমেই কিন্তু আসলে  বড়ব্যবসায় রূপান্তর করে ফেলা  সম্ভব।

 আজ  আমি আপনাদের সাথে  এমন কয়েকটা  ব্যবসার আইডিয়া সম্পর্কে বলবো ,  যা করতে হলে খুব বেশি পরিমানে  মূলধন এর দরকার হয় না এই সকল  ব্যবসার ঝুঁকি এর  পরিমাণটা আসলে  অনেক কম থাকে আমি ১০টা  ব্যবসা এর  আইডিয়া শেয়ার করব আজকে আপনাদের সাথে  , এখন পছন্দ আপনাদের কাছে আপনি কোনটা করবেন

সল্প মূলধন দিয়েই ১০টি লাভজনক নতুন ব্যবসার আইডিয়া

 

 ·     নার্সারি করতে পারেন :  

নার্সারিকথাটা শুনলে  আপনাদের অনেকের  কাছেই   মনেহতে পারে যে , এই সব আবার কোন ব্যবসাহল নাকি কোন ! মূলত  পুরানোধাঁচ এর  নার্সারিনা করেই যদি   একটুস্মার্ট পদ্ধতিতে যদি করেন তা হলে কিন্তু আপনারা অনেক তারা তারি  লাভবানহয়ে যেতে পারবেন । বর্তমানের এই সময়তে কিন্তু এখন  শহর এর  অধিকাংশমানুষেরাই  ফ্লাটে, বারান্দাতে , ছাদে কিংবা টবেফুলের গাছ , ফল অথবা  বনসইজাতীয় গাছ লাগিয়ে থাকেন ।

গ্রাহকচাহিদা রয়েছে এই রকমের  গাছনির্বাচন করে তার পরেই আপনারা  সেইটার  নার্সারিকরেন। তা হলেই কিন্তু আপনাদের  বিক্রিরপরিমাণটা ও  অনেকবেশি বৃদ্ধি পেতে থাকবে । আর তা ছাড়াবিলাস বহুল বনসই, অর্কিড অথবা ফলফুল এর  নার্সারিকরেই কিন্তু  অধিকটাকা আয় করে নিতে  পারবেন অনায়াসেই । গ্রামে যদি থেকে থাকেন তা হলে কিন্ত  নার্সারিকরা অনেকটা  সহজ হবে আপনাদের জন্য । কিন্তু শহর এ  হলেসহজ এর সাথে সাথে কিন্তু আপনাদেরকে  আয় করার  পরিমাণটা ওবেশি হয়ে থাকবে।

 শহর এর  ক্ষেত্রে কিন্তু  আপনারা  যদিআপনাদের  নিজেদেরবাসা এর  ছাদেঅথবা  অন্যেদেরবাসার ছাদ ভাড়া নিয়েই  কাজকরে থাকেন , তা হলে  কিন্তু শহরে এই  বিক্রিকরে ফেলতে  পারবেন অনেক  দ্রুত।বর্তমান এ এখন অনেক  বৃক্ষমেলা হএয়ে থাকে , যে খানে অনেক লাভ এর  বিনিময়েই  গাছবিক্রি করা কিন্তু আসলেই সম্ভব।

·     অনলাইন টিউশনি করাতে পারেন :

 আপনাদের  যাদের মেধা অনেক  ভালআর তার সাথে সাথে যাদের  শিক্ষকতা এর  অভ্যাসরয়েছে  তারা কিন্তু  চাইলেই  অনলাইন এ  শিক্ষকতাকরতেই  পারেন।অনলাইন এ  শিক্ষকতাকরবার  জন্য কিন্তু  খুববেশি  পরিমানে ১ টা পুঁজির এর দরকার পরে না । ১ টিভিডিও ক্যামেরা আর ১ টি ভাল মাইক্রোফোন হলেই কিন্তু  শুরুকরে দিতে পারেন আপনারা এই  অনলাইনে  টিউশনি।

ফেসবুকপেজ, ফেসবুক গ্রুপ, ইউটিউব এই গুলো সহ আর ও  অনেকমাধ্যমেই কিন্তু আপনারা  সম্পূর্ণফ্রিতেই  আপনাদেরভিডিও গুলোকে  আপলোডদিয়েই  টিউশনিকরাতে পারেন। ভিউ বৃদ্ধি পেলেই কিন্তু আপনাদের  ফেসবুক কিংবা  ইউটিউব কোম্পানিআপনাদেরকে টাকা প্রদান করতে থাকবে । আর তা ছাড়া ও আপনাদের রজনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পেতে থাকবে , প্রিপেমেন্টপদ্ধতিতেই কিন্তু আপনারা চাইলেই  অনলাইনেলাইভ ক্লাস করেই  নিতেপারেন।

 ·     দর্জি :  

গতানুগতিকভাবে না কিন্তু   বরংযদি  একটু যদি  স্মার্টপদ্ধতিতে দর্জি ব্যবসা করতে পারেন। এইটা  কিন্তু অনলাইনে আর  হোমডেলিভারি ভিত্তিক হিসেবে ও  হতেপারেন। মানুষ অনলাইন এ এখন  অর্ডারকরবে আপনারা  মানুষদের  বাড়িবাড়ি গিয়েই  মাপআর  কাপড়নিয়েই  আসবেন।আর তা ছাড়াও  নতুননতুন আকর্ষণীয় ডিজাইন এর  কাপড়তৈরি করেই কিন্তু  অনলাইনেবিক্রি করা শুরু করে দিতে  পারেন।দর্জি এর   কাজকরতে কিন্তু  খুববেশি  একটা পুঁজি এর দরকার পরে না। আর দর্জির চাহিদা সারা বছরই কিন্তু  থাকেআর  বিভিন্নউৎসব এ কিন্তু এই কাজের চাহিদাবৃদ্ধি পেতেই  থাকে।

·      হস্তশিল্প  শুরু এর  ব্যবসা করতে পারেন(Low capital business idea) :

 

হস্তশিল্প এর  চাহিদাযুগ যুগ ধরেই কিন্তু  রয়েইগিয়েছে । শখ এর  বসেই কিন্তু অথবা অনেক এ  ঘরসাজানো  এর  জন্য   হলে ও কিন্তু এখন মানুষেরা  হস্তশিল্পকিনে থাকেন । আপনারা  চাইলেই কিন্তু নিজেরাই  তৈরিকরে তার পরে শুরু করে দিতে পারেন  এইব্যবসা অথবা নির্ভরযোগ্য উৎসহতে আপনারা  পণ্যসংগ্রহ করেই কিন্তু আপনারা সেটা  অনলাইন এ  কিংবাদোকানে  খুলেই  ব্যবসাকরতেই  পারেন।

 

·     টিকিট বুকিং সেবা দিতে পারেন(Low capital business idea):

 

টিকেটবুকিং সেবাটা এখন  বর্তমানের এই সময়তে অনেক  জনপ্রিয়১ টি ব্যবসা। এই ব্যবসাটা  করতে হলে কিন্তু আপনাদেরকে প্রথম দিকেএকটু কষ্ট করতেই   হতেপারে আর তার  পরে কিন্তু আপনাদের আর এইকষ্টটা থাকবেই না  অনেকটাই  কমেযাবে। প্রথম দিকের সময়তে কিন্তু অনলাইনেমার্কেটিং আর ট্রাভেল এজেন্সি এর সঙ্গেই কিন্তু চুক্তি করেই  নিয়ে নিতে পারেন । আর এর ফলে কিন্তু  তাদেরসব  ক্লাইন্টদেরকেআপনারা   অনলাইনেই  টিকিটবুকিং করে দিয়ে দিবে । এতেকরেই কিন্তু অনেক সহজেই  ক্লাইন্টপেয়ে যাবেন । বাস, ট্রেন অথবা প্লেন এর  টিকিট এর  ব্যবসাকরেই কিন্তু আপনারা অনেক সহজেই  কিন্তু লাখপতিহয়ে যেতে  পারবেন।

 ·  কফিশপের ব্যবসা :  

যেখানেমানুষদের  আড্ডাহয়ে থাকে , সেই খানে কফিশপ এর  বিক্রিবেশি হয়ে থাকে । কফিশপ দিতে খুব বেশি মূলধন এর দরকার  হয়না। দোকান ভাড়া সহ কয়েক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ এই  কিন্তু ১ টিপূর্ণাঙ্গ কফিশপ করা আসলেই   সম্ভব।কফিশপে  কফি এর সঙ্গে সঙ্গে  হরেকরকম এর  চা, সরবত, জুস রাখা যেতেই  পারে।এই ধরন এর  ব্যবসাদোকান না দিয়েই কিন্তু  রাস্তাতে  গাড়িতেই  করে ওবিক্রি করা কিন্তু এই কাজটা করা  সম্ভব।

 

·      পুরনো জিনিসের দোকান দিতে পারেন :

 

পুরনো জিনিস এর দোকান দিলেইকিন্তু অনেক কমপুঁজিতেই  বেশিলাভবান হওয়াটা আসলেই  সম্ভব, এখন অনেকেই এইব্যবসা করতেছেন প্রথম দিকে  আপনারা  পুরানো যেসকল  বইআছে সেইগুলো , তারসাথে পণ্য বিক্রিকরতেই  পারেন।পুঁজি যখন বেড়েযাবে তখন নাহয় আপনারা  দুর্লভ পণ্যরাখবেন , এই সবপণ্যের চাহিদা অনেকথাকে চাইলেইকিন্তু  অনলাইনেবিজ্ঞাপন দিয়েই আপনারাঅনেক  মানুষেরনিকট হতেই  সংগ্রহ করতেই পারেন। আবারচাইলেই  অনলাইনে আপনাদের পুরনোজিনিস বিক্রি করতেই পারেন।

 

আরও পড়ুন  – ধান ক্রয় বিক্রয়ের লাভজনক  ১১ টি ব্যবসার আইডিয়া 

·      মোবাইল রিচার্জের দোকান দিতে পারেন :  

 

মোবাইল রিচার্জের দোকান দিতে কিন্তু খুব বেশি  একটা মূলধন এর দরকার পড়ে  না। মাত্র কয়েক হাজার টাকা দিয়েই কিন্তু বিনিয়োগ করেই শুরু করেই দিতে পারেন  মোবাইল রিচার্জের  দোকান। দোকান ছারা ও কিন্তু আপনারা  শুধু ১টি চেয়ার আর  তার সাথে টেবিল দিয়েই  বাহিরে বসেই করতে পারবেন  এই কাজটা । আস্তে আস্তে মূলধন বেড়ে গেলে  পরিসর বাড়িয়ে নেওয়া যায় ।

 

 

আরও পড়ে দেখুন – বর্তমানে সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা ২০২১

 

·     লন্ড্রি এর দোকান দিতে পারেন :

 

লন্ড্রি এর  চাহিদামানুষদের কিন্তু দৈনিকচাহিদা এর একটা   জিনিস।কাপড় ধোয়াই কিন্তু আয়রন করবার জন্যই লন্ড্রি অনেক গুরুত্বপূর্ণ অবস্থানদখল করেই রয়েছে । আপনারা  চাইলেই  এইব্যবসাকেই  একটুস্মার্ট পদ্ধতিতেই  করতেপারবেন । যেমনটা Bandbox করেই  থাকে।মানুষদের  বাড়িবাড়ি গিয়েই কিন্তু  হোমডেলিভারি এনেই  আবারকাজ সম্পন্ন করেই  ফেরতদিয়ে দিতে  পারেন।আর তা ছাড়া ও  গুরুত্বপূর্ণ পোশাক ভাড়াদেবার  কাজটা কিন্তু   লন্ড্রি দোকানদিয়েই করে নিতে  পারেন।

·     হাতে বানানো  খাবার :  

হাতে বানানোর  খাবার এর  চাহিদা যুগযুগধরেই রয়েছে। এই ধরন এর  ব্যবসা সব থেকে  বেশি চলেশহর এর দিকে। মানুষ এর  কর্ম ব্যস্ততা এর  কারণেই কিন্তু  অনেক কিছুঘরে বসে   তৈরি করতেই  পারে না।আপনারা  সে সকল  খাদ্যনির্বাচন করে  দোকানেই  তৈরিআর তার পরে  বিক্রিকরতেই  পারেন।সাথে সাথে  অনলাইনেবিক্রি এর  অপশনরাখতেই  পারেন।

·     আমাদের শেষ কথা :

 

এই  গুলোই   ছিল আমাদের  আজকের আলোচনা  অল্পপুঁজিতে ১০টা  লাভজনকব্যবসার আইডিয়া। আমি চেষ্টা করেছি যে  কমপুঁজি দিয়ে , সহজব্যবসা গুলোকে  তুলেধরবার । এখন কিন্তু আপনাদের  কাজ, আপনি যে কাজেই  পারদর্শীসেই ব্যবসাটাকে কিন্তু আপনারা  এখনইশুরু করে দিতে পারেন ।

 

তথ্যPriyo Career

 

 

 

 

 

 

Related Articles

Back to top button