Technology

‘নগদ’ দিয়ে পরিশোধ করে দিতে পারবেন সকল কলেজের সকল ফি

আমাদের বাংলাদেশের ভিতরে সব থেকে  সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ আমাদের দেশের ঢাকা কলেজের  সমস্ত ধরনের ফি  বর্তমানে এখন কিন্তু আমাদের দেশের যে ডাক  বিভাগের মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস রয়েছে অর্থাৎ  ‘নগদ’-এর  মাধ্যমে পরিশোধ করে দিতে পারবেন আমাদের দেশের শিক্ষার্থীরা   নগদ’ দিয়ে পরিশোধ করে দিতে পারবেন সকল কলেজের সকল ফি-

‘নগদ’ দিয়ে পরিশোধ করে দিতে পারবেন সকল কলেজের সকল ফি

 

যার কারণে কিন্তু  দেড় শতাব্দী প্রাচীন   কলেজের   ১২ হাজার  যে সকল শিক্ষার্থী রয়েছেন তাদের কিন্তু সুবিধাজনক  সময় যারা যেকোন স্থানে  থাকুক না কেন সেই খান থেকেই কিন্তু মাসিক বেতন সহ সকল ধরনের   টাঁকা কিন্তু তারা কিন্তু  খুব সহজে নিরাপদেই পরিশোধ করে দিতে পারবেন।

 

নগদ’ দিয়ে পরিশোধ করে দিতে পারবেন সকল কলেজের সকল ফি

বিশেষ করে তো আমাদের দেশের করণা মহামারীর এই সময়তে  এই সেবাটা  সমস্ত শিক্ষার্থী  আর তার সাথে সাথে  সংশ্লিষ্টদের আরো উপযোগী  হয়ে উঠবে বলে আশা করা যায় শিক্ষার্থীদের  সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু  কলেজ কর্তৃপক্ষের বেতন ব্যবস্থাপনাকে   আরো অনেক সহজ  আর  অনেক সাশ্রয়ী করে তুলবে  ‘নগদ ঢাকা  কলেজের  শিক্ষার্থীরা কিন্তু বর্তমানে এখন  থেকেনগদঅ্যাপ  কিংবা  *১৬৭# ডায়াল  করেই তারা  কলেজ ফি  আর তার সাথে সাথে অন্যান্য যেসকল রয়েছে সেগুলো খুব সহজেই তারা দেশের যেকোনো স্থান থেকে পরিশোধ করে দিতে পারবেন

সম্প্রতি এই   বিষয় কিন্তু আসলে  মোবাইল ফাইন্যান্সিয়াল সার্ভিস খাতে  সারা বিশ্বের ভিতরে সবথেকে দ্রুত বর্ধনশীল অপারেটরনগদ’-এর  সাথে একটা চুক্তি করে ফেলেছে প্রাচীনতম এই কলেজটা   আমাদের  ঢাকা কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক আই কে সেলিম উল্লাহ খন্দকার  আর  ‘নগদ’-এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা যিনি রয়েছেন অর্থাৎ  (সিইওযিনি রয়েছেন  তিনি হলেন  রাহেল আহমেদ নিজ নিজ প্রতিষ্ঠান এর  পক্ষে কিন্তু  চুক্তিতে স্বাক্ষর  করে দিয়েছেন  

 

 আর এই সময়ে কিন্তু  ঢাকা  কলেজের  উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক টি এম মইনুল হোসেন আর তার সাথে কিন্তু  ‘নগদ’- এর হেড অব ইউটিলিটি অ্যান্ড এডুকেশন Paymant সোহায়েল এস তাসনিম এবং অন্য যে সকল ব্যক্তি রয়েছেন তারা উপস্থিত ছিল  

কলেজের ফি পরিশোধ করার জন্য কিন্তু  ‘নগদঅ্যাপের ভিতরে গিয়ে আপনাদেরকে  পেবিল আইকন  হতে  এডুকেশনে ক্লিক করে তার  পরে, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের তালিকা  হতে কিন্তু ঢাকা কলেজ নির্বাচন  করে দিয়ে তারপরে  শিক্ষার্থীর তথ্য দিতে হবে , টাকা এর  পরিমাণ আর পিন দেওয়ার পরে কিন্তু বেতন পরিশোধ  করে ফেলা হয়ে যাবে ফি দেওয়া  হয়ে যাবার পর কিন্তু  শিক্ষার্থীরা   ডিজিটাল রিসিটও ডাউনলোড  করে সেটাকে সংরক্ষণ করার সুযোগ  এখানে রয়েছে  

 

 আর সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু  ভবিষ্যৎ ফি পরিশোধ  সহজ করে দেবার জন্য  ফি  পরিশোধ করার জন্য  প্রয়োজনীয়  তথ্যগুলোকে অ্যাপে সংরক্ষণ করে রাখার সুযোগ পাচ্ছেন কিন্তু শিক্ষার্থীরা  

 

আর সব থেকে বড় কথা হল এখানে কিন্তু শুধু ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীরা রয়েছেন তারাই কিন্তু শুধু নয়আমাদের দেশের অন্যান্য যে সকল প্রতিষ্ঠান অর্থাৎ  সেরা শিক্ষা  প্রতিষ্ঠান কিন্তু সকল প্রকার  ফি  পরিশোধ করে দেবার জন্য  ‘নগদ’  দেওয়ার জন্য এখন কিন্তু নগদ সকলের কাছে জনপ্রিয় এতে করে  কিন্তু কর্মদিবসে ব্যাংকে  লম্বা লাইনে দাঁড়িয়ে শিক্ষার্থীদের কে কিংবা তাদের অভিভাবকদেরকে কিন্তু আসলে বিল পরিশোধ করার ঝামেলা পোহাতে হবে না তারা কিন্তু এই ঝামেলা থেকে বেঁচে যাবে।

 

তার সঙ্গে সময় আর  খরচ সাশ্রয়  করার জন্য সারা দেশের ভিতরে কিন্তু চার শতাধিক প্রতিষ্ঠানকে ফি পরিশোধ  সেবা দিয়ে যাচ্ছে আমাদের দেশের  ‘নগদ  আর এই  ডিজিটাল ফি  পরিশোধ করার  ব্যবস্থা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান গুলোর বেতন ব্যবস্থাপনায় বাড়তি গতিশীলতা  নিয়ে এসে গিয়েছে আর তার সঙ্গে সঙ্গে কিন্তু অনেক ক্ষেত্রে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানেও কর্মঘন্টা বাঁচার সংগে সংগে কিন্তু  কার্যক্রমে অনেক গতিশীলতা এসে গিয়েছে ।নগদ’ দিয়ে পরিশোধ করে দিতে পারবেন সকল কলেজের সকল ফি

  

 Read More-

অন পেজ এসইও শেখার বইটি ফ্রীতে ডাউনলোড করে নিন

পরিক্ষায় ভালো ফলাফল অর্জনের টেকনিক বইটি ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন

Never Stop Learning বইটি ফ্রিতে ডাউনলোড করে নিন 

তারাতারি ইংরেজি শেখার সহজ উপায় জেনে নিন

 

*১৬৭# ডায়াল করেই   ফি  পরিশোধ করার পদ্ধতি সম্পর্কে জেনে নিন  – 

 

যে সকল  গ্রাহক রয়েছেন তারা কিন্তু ইন্টারনেট ব্যবহার করতেছে না   , তাদের ফি  প্রদান করার জন্য কিন্তু আসলে তাদেরকে  *১৬৭# ডায়াল  করার পরে  তাদেরকে  মেন্যুবার থেকেই  নম্বরে বিল পে অপশনে যাওয়া লাগবে  

 তারপর সেই খান থেকে তাদেরকে  নম্বরে থাকাএডুকেশন’   অপশনে যাওয়ার পরে কিন্তু শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের  নাম চলে আসবেপ্রত্যেকবার পাঁচটা করে   নাম চলে আসবে আর তালিকাতে নিচের দিকে থাকলে ইংরেজি অক্ষর ‘N’ প্রেস  করে  দিলেই কিন্তু   ঢাকা কলেজের নাম  তারা পেয়ে যাবে   সেখানে কিন্তু সকল  শিক্ষার্থীর  পরিচয় সংক্রান্ত কিছু তথ্য দেওয়ার পরে কিন্তু খুব সহজেই তারা বিল প্রদান কার্যক্রম সম্পন্ন করে ফেলতে পারবে।

 

তথ্য – channeionline 

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button